বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ম একাডেমিক কাউন্সিল সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের ৭ম সভা অনলাইন প্লাটফর্ম জুম ক্লাউড মিটিং-এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ বিকালে অনুষ্ঠিত এই সভায় গুরুত্বপূর্ণ কিছু একাডেমিক ও প্রশাসনিক বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

একাডেমিক কাউন্সিলের এ সভায় সভাপতিত্ব করেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য(ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আশিক মোসাদ্দিক। সভায় অনলাইনে যুক্ত ছিলেন কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং ইংরেজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর মো. শহীদুর রহমান, ব্যবসা প্রশাসন ও আইন অনুষদের ডিন এবং ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের প্রধান ড. কানিজ হাবিবা আফরিন, সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ডিন এবং কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মো. শহীদ-উজ-জামান। এছাড়া আরও যুক্ত ছিলেন সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মো. ফয়জার রহমান, ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আব্দুল গোফ্ফার খান, অর্থনীতি বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মো. ইলিয়াস হোসেন, আইন ও মানবাধিকার বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর আবু নাসের মো. ওয়াহিদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান ড. মো. হাবিবুল্লাহ, ফার্মেসী বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. তারান্নুম নাজ, জার্নালিজম, কমিউনিকেশন অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের কো-অর্ডিনেটর মো. শাতিল সিরাজ, পাবলিক হেলথ বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ডা. জাওয়াদুল হক, ক্যারিয়ার সেন্টারের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. কামরুজ্জামান এবং একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য সচিব ও বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. মো. মহিউদ্দিন।

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সম্মানিত সদস্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এমেরিটাস ড. অরুণ কুমার বক, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. এস এ হায়দার, মার্কেটিং বিভাগের প্রফেসর ড. সঞ্জীব কুমার সাহা এবং ফলিত পদার্থবিজ্ঞান ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. আবু বকর মো. ইসমাইল এই সভায় যুক্ত হয়ে তাঁদের মূল্যবান মতামত প্রদান করেছেন এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহযোগিতা করেছেন। সভায় একাডেমিক ও প্রশাসনিক বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। বিশেষ করে ইউজিসির নির্দেশনা অনুসারে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম বিষয়ক নীতিমালা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস ও পরীক্ষা, বিভিন্ন বিভাগের সিলেবাস সংশোধন, বিভিন্ন বিভাগের পাঠ্যক্রম পুনর্গঠন ও পরীক্ষা কমিটি গঠন, ইউজিসির নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী ২০২২ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স প্রোগ্রামে বছরে দুটো সেমিস্টারে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া সকল শিক্ষার্থীকে করোনার টিকার আওতায় নিয়ে আসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আলোচনা করা হয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *