সহকারী শিক্ষকের ডোপ টেস্টসহ স্বাস্থ্য পরীক্ষা স্থগিত

দেশব্যাপী চলছে কঠোর লকডাউন। যার কারণে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২ হাজার ১২১ জন সহকারী শিক্ষকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

সহকারী শিক্ষকের ডোপটেস্টসহ স্বাস্থ্য পরীক্ষা স্থগিত এ বিষয়ে ১ জুলাই এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশব্যাপী কঠোর লকডাউন/শাটডাউনের কারণে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২ হাজার ১২১ সহকারী শিক্ষক-শিক্ষিকার স্বাস্থ্য পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। লকডাউন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে। বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) নেওয়া ভাইভা শেষে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২ হাজার ১২১ জন সহকারী শিক্ষক-শিক্ষিকার (দশম গ্রেড) ৪ জুলাই থেকে ডোপ টেস্টসহ স্বাস্থ্য পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, সরকারি কর্ম কমিশন কর্তৃক সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নতুন নিয়োগ পাওয়া ২ হাজার ১২১ জন সহকারী শিক্ষক-শিক্ষিকার ডোপ টেস্টসহ স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে। এক্স–রে, প্রস্রাব ও চক্ষু পরীক্ষা করে রিপোর্ট স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠাতে হবে। এসব পরীক্ষার সঙ্গে বাধ্যতামূলকভাবে ডোপ টেস্ট করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠাতে হবে। পরীক্ষার জন্য হাসপাতাল ও প্রার্থীদের তালিকাও প্রকাশ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে করোনা বাড়ার কারণে এ  স্থগিতাদেশ দেওয়া হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *